আজ-  ,
basic-bank পরিক্ষা মূলক সম্প্রচার...
ADD
সংবাদ শিরোনাম :
«» সৈয়দপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বখতিয়ার কবীর আর নেই। «» সৈয়দপুরের সাবেক কমিশনার আফসার আলী ওরফে থোপসা চৌধুরী আর নেই। «» আজ ভয়াল ২১ আগষ্ট। «» সৈয়দপুরে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যেগে বৃক্ষরোপন ও খাদ্য বিতরন কর্মসুচী পালন। «» সৈয়দপুরের মোক্তাদির আলম আরাফাতের পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন। «» সৈয়দপুরে দৈনিক মুক্তভাষা’র উদ্যেগে শোক দিবস পালন। «» সৈয়দপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল সামাদ আর নেই। «» সৈয়দপুরে ভূমি দস্যু কতৃক মারপিটের শিকার আব্দুল হামিদের অবস্থা আশংকাজনক। «» শেখ কামাল ছিলেন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী অনন্য সংগঠক। «» আ’লীগ থেকে বহিষ্কৃত হেলেনা জাহাঙ্গীর গ্রেফতার।

ডায়াবেটিস একটি মরনব্যাধী

মুক্ত ভাষা,১৪ নভেম্বর : ডায়াবেটিস এমন একটি শারীরিক অবস্থা যা সারা জীবনের জন্যে বয়ে বেড়াতে হয় এবং সারা বিশ্বে এর কারণে প্রতি বছর ১০ লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। এছাড়া যে কোন ব্যক্তিই এই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হতে পারেন।

শরীর যখন রক্তের সব চিনিকে (গ্লুকোজ) ভাঙতে ব্যর্থ হয়, তখনই ডায়াবেটিস হয়। এই জটিলতার কারণে মানুষের হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক হতে পারে।

এছাড়াও ডায়াবেটিসের কারণে মানুষ অন্ধ হয়ে যেতে পারে, নষ্ট হয়ে যেতে পারে কিডনি এবং অনেক সময় শরীরের নিম্নাঙ্গ কেটেও ফেলতে হতে পারে।

সারা বিশ্বেই এই সমস্যা বেড়ে চলেছে। বর্তমানে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৪২ কোটিরও বেশি। ৩০ বছর আগের তুলনায় এই সংখ্যা এখন চার গুণ বেশি- এই হিসাব বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার।

চিকিৎকরা বলছেন, ডায়াবেটিসের এতো ঝুঁকি থাকার পরেও যতো মানুষ এই রোগে আক্রান্ত তাদের অর্ধেকেরও বেশি এই রোগটি সম্পর্কে সচেতন নয়।

তবে জীবন যাপনের ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম নীতি মেনে চললে অনেক ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসকে প্রতিরোধ করা সম্ভব। এখানে তার কিছু উপায় তুলে ধরা হলো।

ডায়াবেটিস কেন হয়?

আমরা যখন কোন খাবার খাই তখন আমাদের শরীর সেই খাদ্যের শর্করাকে ভেঙে চিনিতে (গ্লুকোজ) রুপান্তরিত করে। অগ্ন্যাশয় থেকে ইনসুলিন নামের যে হরমোন নিসৃত হয়, সেটা আমাদের শরীরের কোষগুলোকে নির্দেশ দেয় চিনিকে গ্রহণ করার জন্যে। এই চিনি কাজ করে শরীরের জ্বালানী বা শক্তি হিসেবে।

শরীরে যখন ইনসুলিন তৈরি হতে না পারে অথবা এটা ঠিক মতো কাজ না করে তখনই ডায়াবেটিস হয়। এবং এর ফলে রক্তের মধ্যে চিনি জমা হতে শুরু করে।

টাইপ ওয়ান ডায়াবেটিসে অগ্ন্যাশয় থেকে ইনসুলিন উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। তখন রক্তের প্রবাহে গ্লুকোজ জমা হতে শুরু করে।

বিজ্ঞানীরা এখনও বের করতে পারেন নি কী কারণে এরকমটা হয়। তবে তারা বিশ্বাস করেন যে এর পেছনে জিনগত কারণ থাকতে পারে। অথবা অগ্ন্যাশয়ে ভাইরাসজনিত সংক্রমণের কারণে ইনসুলিন উৎপাদনকারী কোষগুলো নষ্ট হয়ে গেলেও এমন হতে পারে।

যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের ১০ শতাংশ এই টাইপ ওয়ানে আক্রান্ত।

অন্যটি টাইপ টু ডায়াবেটিস। এই ধরনের ডায়াবেটিসে যারা আক্রান্ত তাদের অগ্ন্যাশয়ে যথেষ্ট ইনসুলিন উৎপন্ন হয় না অথবা এই হরমোনটি ঠিক মতো কাজ করে না।

সাধারণত মধ্যবয়সী বা বৃদ্ধ ব্যক্তিরা টাইপ টু ধরনের ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে থাকেন। বয়স কম হওয়া সত্ত্বেও যাদের ওজন বেশি এবং যাদেরকে বেশিরভাগ সময় বসে বসে কাজ করতে হয় তাদেরও এই ধরনের ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

বিশেষ কিছু এলাকার লোকেরাও এই ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে আছে। তার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়া।

সন্তানসম্ভবা হলে পরেও অনেক নারীর ডায়াবেটিস হতে পারে। তাদের দেহ থেকে যখন নিজের এবং সন্তানের জন্যে প্রয়োজনীয় ইনসুলিন যথেষ্ট পরিমানে তৈরি হতে না পারে, তখনই তাদের ডায়াবেটিস হতে পারে।

এক গবেষণায় দেখা গেছে ৬ থেকে ১৬ শতাংশ গর্ভবতী নারীর ডায়াবেটিস হতে পারে। ডায়েট, শরীর চর্চ্চা অথবা ইনসুলিন নেওয়ার মাধ্যমে তাদের শরীরে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখা গেলে তাদের টাইপ টু ধরনের ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব।

সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গগুলোর মধ্যে রয়েছে:

খুব তৃষ্ণা পাওয়া
স্বাভাবিকের চাইতেও ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া। বিশেষ করে রাতের বেলায়।
ক্লান্ত বোধ করা
কোন কারণ ছাড়াই ওজন কমে যাওয়া
প্রদাহজনিত রোগে বারবার আক্রান্ত হওয়া
দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যাওয়া
শরীরের কোথাও কেটে গেলে সেটা শুকাতে দেরি হওয়া

চিকিৎসকরা বলছেন, টাইপ ওয়ান ডায়াবেটিসের লক্ষণ শৈশব থেকেই দেখা দিতে পারে এবং বয়স বাড়ার সাথে সেটা আরো জটিল হয়ে উঠতে পারে।

বয়স ৪০ বছরের বেশি হওয়ার পর থেকে টাইপ টু ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়। তবে দক্ষিণ এশিয়ার লোকজনের মধ্যে এই ঝুঁকি তৈরি হয় তাদের ২৫ বছর বয়স হওয়ার পর থেকেই।

যাদের পিতামাতা, ভাই বোনের ডায়াবেটিস আছে, অথবা যাদের অতিরিক্ত ওজন, দক্ষিণ এশিয়ার কোন দেশের মানুষ, আফ্রো-ক্যারিবিয়ান অথবা কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান তাদেরও এই ঝুঁকি বেশি থাকে।

ডায়াবেটিস কি প্রতিরোধ করা সম্ভব?

ডায়াবেটিস যদিও জেনেটিক এবং আপনার জীবন যাপনের স্টাইলের ওপর নির্ভরশীল তারপরেও আপনি চেষ্টা করলে রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখতে পারেন।

সেজন্যে আপনাকে খাবার গ্রহণের বিষয়ে বিশেষভাবে সচেতন থাকতে হবে এবং আপনাকে হতে হবে অত্যন্ত সক্রিয় একজন মানুষ।

প্রক্রিয়াজাত খাবার ও পানীয় এড়িয়ে চলতে হবে। মৃসন শাদা আটার রুটির পরিবর্তে খেতে হবে ভুষিওয়ালা আটার রুটি। এটাই প্রথম ধাপ।

এড়িয়ে চলতে হবে হোয়াইট পাস্তা, প্যাস্ট্রি, ফিজি ড্রিংকস, চিনি জাতীয় পানীয়, মিষ্টি ইত্যাদি।

আর স্বাস্থ্যকর খাবারের মধ্যে রয়েছে শাক সব্জি, ফল, বিন্স এবং মোটা দানার খাদ্য শস্য।

স্বাস্থ্যকর তেল, বাদাম খাওয়াও ভালো। ওমেগা থ্রি তেল আছে যেসব মাছে সেগুলো বেশি খেতে হবে। যেমন সারডিন, স্যামন এবং ম্যাকেরেল।

এক বেলা পেট ভরে না খেয়ে পরিমানে অল্প অল্প করে বিরতি দিয়ে খাওয়া দরকার। শরীর চর্চ্চা বা ব্যায়াম করার মাধ্যমে রক্তে চিনির মাত্রা কমিয়ে রখা সম্ভব।

চিকিৎসকরা বলছেন, প্রতি সপ্তাহে আড়াই ঘণ্টার মতো ব্যায়াম করা দরকার। তার মধ্যে দ্রুত হাঁটা এবং সিড়ি বেয়ে ওপরে ওঠাও রয়েছে।

ওজন কম রাখলেও চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। যদি ওজন কমাতে হয় তাহলে সেটা ধীরে ধীরে করতে হবে। সপ্তাহে আধা কেজি থেকে এক কেজি পর্যন্ত।

ধূমপান পরিহার করাও জরুরী। নজর রাখতে হবে কোলস্টেরলের মাত্রার ওপর। এর মাত্রা বেশি হলে হৃদ রোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ডায়াবেটিসের কারণে কী ধরনের জটিলতা দেখা দিতে পারে?

রক্তে চিনির পরিমাণ বেশি হলে রক্তনালীর মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

শরীরে যদি রক্ত ঠিক মতো প্রবাহিত হতে না পারে, যেসব জায়গায় রক্তের প্রয়োজন সেখানে যদি এই রক্ত পৌঁছাতে না পারে, তখন স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।

এর ফলে মানুষ দৃষ্টি শক্তি হারাতে পারে। ইনফেকশন হতে পারে পায়ে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, অন্ধত্ব, কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়া, হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক ইত্যাদির পেছনে একটি বড় কারণ ডায়াবেটিস।

কতো মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেবে ১৯৮০ সালে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছিল প্রায় ১১ কোটি। ২০১৪ সালে সেটা বেড়ে হয় ৪২ কোটিরও বেশি।

১৯৮০ সালে ১৮ বছরের বেশি বয়সী মানুষের ডায়াবেটিস হওয়ার হার ছিল ৫ শতাংশেরও কম কিন্তু ২০১৪ সালের তাদের সংখ্যা বেড়ে দা*ড়িযেছে ৮ দশকি ৫ শতাংশ।

ইন্টারন্যাশনাল ডায়াবেটিস ফেডারেশন বলছে, প্রাপ্ত বয়স্ক যেসব মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত তাদের প্রায় ৮০ শতাংশ মধ্য ও নিম্ন আয়ের দেশের, যেখানে খুব দ্রুত খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন ঘটছে। সংস্থাটি বলছে, ২০১৬ সালে ডায়াবেটিসের কারণে প্রায় ১৬ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। 

Related Posts
করোনা সংক্রমন ১১জেলায়।। ঢাকায় অর্ধেকের বেশী
দেশে এই পর্যন্ত যে ৮৮ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে, তার অর্ধেকের বেশি ঢাকার। আইইডিসিআরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এইপর্যন্ত ১১টি জেলায় নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে, তার মধ্যে রাজধানীর রোগীর সংখ্যা ৫২ জন। বৈশ্বিক ...
READ MORE
হৃদরোগের প্রাথমিক উপসর্গ
আমাদের দেশে অনেক ব্যক্তিই হৃদরোগে ভুগছেন। বিশেষ করে বয়স্ক ব্যক্তিরা। কেউ উচ্চরক্তচাপজনিত হৃদরোগ, কেউবা ডায়াবেটিসজনিত হৃদরোগ কেউ হয়তোবা করোনারি আর্টারি ব্লকজনিত হৃদরোগ আবার কেউ কেউ রিং অথবা বাইপাস-পরবর্তী হৃদরোগে ভুগছেন। এসব ...
READ MORE
সাধারন ছুটি বাড়ছেনা,৩১ মে থেকে সীমিত সংখ্যক যাত্রী নিয়ে ট্রেনসহ সকল গণপরিবহন চলবে।
করোনাভাইরাস প্রার্দূভাবের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঘোষণা করা সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না। তবে সীমিত আকারে চালু হচ্ছে অফিস, বন্ধ থাকছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।ট্রেনসহ সকল গণপরিবহন চলবে সীমিত সংখ্যক যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্য ...
READ MORE
বেনসন ২০ গোল্ডলিপ ১৬ টাকা দর নির্ধারন করার প্রস্তাব স্বাস্হ্য মন্ত্রনালয়ের
এবার সিগারেট ও তামাকজাত পন্যর মুল্য বৃদ্ধির জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে।স্বাস্হ্য মন্ত্রনালয় এক প্রস্তাবে সিগারেটের সর্বনিম্ন মূল্য ৯ টাকা নির্ধারন করার জন্য অর্থমন্ত্রনালয়ে পত্র প্রেরন করেছে। আসন্ন বাজেটকে সামনে রেখে অর্থমন্ত্রী ...
READ MORE
সৈয়দপুরে কর্মহীনদের দ্বারে খাদ্য সহায়তা নিয়ে ছুটছেন ইউনিয়ন আ’লীগের সম্পাদক জিকো আহমেদ
নীলফামারীর সৈয়দপুরে করোনা প্রার্দূভাবে কর্মহীন গরীব-অসহায় মানুষের দ্বারে দ্বারে খাদ্য সহায়তা নিয়ে প্রতিদিন ছুটে চলছেন,কামারপুকুর ইউনিয়ন আ'লীগের সাধারন সম্পাদক,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান,জিকো আহমেদ। করোনা প্রার্দূভাবের শুর থেকেই তিনি কামার পুকুর ইউনিয়নের প্রতিটি ...
READ MORE
করোনায় আজ মৃত্যু ২৮,নতুন সনাক্ত আরো ১৭৬৪ জন
দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাস সংক্রমনে ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৬১০ জন। নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছে রেকর্ড ১৭৬৪ জন। এযাবত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ...
READ MORE
করোনায় করনীয় বিষয়ে রোববার প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের প্রেক্ষাপটে সার্বিক পরিস্থিতি এবং তা মোকাবেলায় সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ তুলে ধরতে রোববার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই খবর ...
READ MORE
সৈয়দপুরে করোনা প্রতিরোধে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের প্রচারনা
সৈয়দপুরে করোনাভাইরাস সংক্রমন রোধে জনসচেতনা সৃষ্টিতে প্রচারনাসহ, লিফলেট, মাক্স, সাবান ও হাত ধোয়ার পানি হাতে রাস্তায় নেমেছে সৈয়দপুর থানা পুলিশসহ সৈয়দপুরের বিশিষ্ট ব‌্যবসায়ীরা। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ...
READ MORE
করোনায় ফের ৩৭ জনের মৃত্যু,নতুন সনাক্ত ২৬৯৫ জন
দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাস সংক্রমনে আরও ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৭৪৬ জন। নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছে ২৬৯৫  জন। এ যাবত করোনায় আক্রান্ত ...
READ MORE
দেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৭০৬ জন
দেশে নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরো ৭০৬ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ১২৪২৫ জন। আরো ১৩০ জনসহ এ যাবত সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৯১০ জন। বৃহস্পতিবার ...
READ MORE
করোনা সংক্রমন ১১জেলায়।। ঢাকায় অর্ধেকের বেশী
হৃদরোগের প্রাথমিক উপসর্গ
সাধারন ছুটি বাড়ছেনা,৩১ মে থেকে সীমিত সংখ্যক যাত্রী
বেনসন ২০ গোল্ডলিপ ১৬ টাকা দর নির্ধারন করার
সৈয়দপুরে কর্মহীনদের দ্বারে খাদ্য সহায়তা নিয়ে ছুটছেন ইউনিয়ন
করোনায় আজ মৃত্যু ২৮,নতুন সনাক্ত আরো ১৭৬৪ জন
করোনায় করনীয় বিষয়ে রোববার প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন
সৈয়দপুরে করোনা প্রতিরোধে পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের প্রচারনা
করোনায় ফের ৩৭ জনের মৃত্যু,নতুন সনাক্ত ২৬৯৫ জন
দেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৭০৬ জন

Spread the love
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।