আজ-  ,
basic-bank পরিক্ষা মূলক সম্প্রচার...
ADD
সংবাদ শিরোনাম :
«» স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নির্মল গুহ আর নেই। «» সৈয়দপুর উপজেলা আ’লীগের “স্বপ্নের পদ্মা সেতু” উদ্বোধন ও প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত। «» ভারতে মহানবীর (সা:) অবমাননার প্রতিবাদে উত্তাল সৈয়দপুর, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ। «» সৈয়দপুরে স্কুল শিক্ষককে ফাঁসাতে গিয়ে বোতলাগাড়ির মিলন এখন জেল হাজতে। «» সৈয়দপুর ফাইলেরিয়া হাসপাতাল পরিচালনায় নতুন কমিটি ঘোষনা। «» সৈয়দপুরে আ’লীগ সভাপতির নেতৃত্বে সাংবাদিক হককে গ্রেফতার ও বহিষ্কারের দাবীতে প্রতিবাদ মিছিল। «» সৈয়দপুরে সাংবাদিক মোতালেব প্রহৃতের ঘটনায় আ’লীগের প্রতিবাদ মিছিল। «» সৈয়দপুরে কামারপুকুর ইউনিয়ন আ’লীগের মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন। «» সৈয়দপুরে আ’লীগের নব-নির্বাচিত কমিটি কতৃক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন। «» সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক সাহিদুর রহমান বিশেষ পুরষ্কারে ভূষিত।

আজ মহান বিজয় দিবস বাঙ্গালীর মুক্তির দিন

আজ মহান বিজয় দিবস। আমাদের মাঝে আবারও ফিরে এল বিজয়ের সেই মাহেন্দ্রক্ষণ; নয় মাসের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাঙালির    মুক্তির দিন।

বাঙালির এই বিজয় এসেছিল অনেক রক্ত ঝরিয়ে, শোষণ-বঞ্চনা আর যন্ত্রণার শেষে লাখো মানুষের আত্মাহুতি ও বাংলা মায়ের আত্মদানের বিনিময়ে।৪৭ বছরের পথচলায় এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। স্বাধীনতার পর ‘তলাবিহীন ঝুড়ির’ দেশ আখ্যায়িত করে যারা অপমান করেছিল, সেই তাদের কণ্ঠেই এখন বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা। দারিদ্র্য আর দুর্যোগের বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উত্তরণের পথে।

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধিসহ আর্থ-সামাজিক প্রতিটি সূচকে এগিয়েছে বাংলাদেশ। বিজয়ের এই ক্ষণে সমৃদ্ধির এই ধারা ধরে রাখতে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া বাণীতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেন, “লাখো শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার সুফল জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে দলমত নির্বিশেষে সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই।“মুক্তিযুদ্ধের লক্ষ্য ও চেতনা বাস্তবায়নে নিজ নিজ অবস্থান থেকে আরও বেশি অবদান রেখে দেশ ও জাতিকে সমৃদ্ধ আগামীর পথে এগিয়ে নিতে আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

এবার বিজয় দিবস ভিন্ন মাত্রা নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায়, ১৪ দিনের মাথায় ভোটের মাধ্যমে আগামী পাঁচ বছরের জন্য বাংলাদেশের নেতৃত্ব বেছে নেবে জনগণ। তবে নির্বাচন ঘিরে সহিংসতার শঙ্কা রয়েছে জনমনে, রয়েছে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে অনিশ্চয়তাও।

রাষ্ট্রপতির বাণীতেও তাই উঠে এসেছে নির্বাচনের প্রসঙ্গ: ভোট উৎসবের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্রের বিজয় সুদৃঢ় করার প্রত্যাশা জানিয়েছেন তিনি।একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণ সৎ, যোগ্য ও দেশপ্রেমিক প্রার্থীদের নির্বাচিত করে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি অব্যাহত রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া বাণীতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের উন্নয়ন ও গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, “আসুন দেশ ও জাতির কল্যাণে আত্মনিয়োগ করি, ২০১৮ সালের বিজয় দিবসে এটাই হোক আমাদের অঙ্গীকার ।”

শেখ হাসিনা বলেন, “বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে বিশ্বের পাঁচটি দেশের একটি বাংলাদেশ। উন্নয়নের ৯০ ভাগ কাজই নিজস্ব অর্থায়নে করছি।“একটানা ১০ বছর আওয়ামী লীগ সরকারে থাকার কারণে তৃণমূলের জনগণ আজ উন্নয়নের সুফল পাচ্ছে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। আগামী প্রজন্ম পাবে সমৃদ্ধিশালী বাংলাদেশ।”

২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে ক্ষুধামুক্ত-দারিদ্র্যমুক্ত মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের আগেই উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার শপথও এসেছে প্রধানমন্ত্রীর বাণীতে।

দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান সৃষ্টি হলেও তা যে টিকবে না, তা আঁচ করেছিলেন অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক; তারপর নিপীড়ন-নির্যাতন পূর্ব পাকিস্তানের মানুষের স্বাধিকার এবং স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষাকে প্রবল করে তোলে।

পূর্ব পাকিস্তানের মানুষের স্বাধিকারের চাওয়াকে পশ্চিম পাকিস্তানিরা ১৯৭১ সালে অস্ত্রের মুখে রুদ্ধ করতে প্রয়াস চালিয়ে যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়েছিল এই ভূখণ্ডের মানুষের উপর।

১৯৭৫ সালের ২৫ মার্চ কালরাতের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সেই প্রতিরোধ যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এই বাংলার মানুষ। ন্যায্য অধিকারের সশস্ত্র সেই সংগ্রামে সহায়তার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে এসেছিল প্রতিবেশী ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।এরপর ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার তৎকালীন রেসকোর্স (এখন সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ময়দানে মুক্তিবাহিনী ও ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় সেনা কমান্ডের যৌথ নেতৃত্বের কাছে আত্মসমর্পণ করে পাকিস্তানি বাহিনী; লাল সবুজ পতাকা ওড়ে স্বাধীন ভূমিতে, নতুন দেশে।

স্বাধীনতার চার বছরের মধ্যে জাতির জনককে হত্যার পর বাংলাদেশের উল্টো পথযাত্রায় শক্তিশালী হয়ে উঠেছিল একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর দোসররা।

তবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। রাজনীতির পটপরিবর্তনের পর বিচারের কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে সেই দোসরদের। বিচার হয়েছে তাদের, বাংলাদেশ তাদের ঝুঁলিয়েছে ফাঁসিকাষ্ঠে।

নানা কর্মসূচি

বিজয়ের ৪৭ বছর পূর্তিতে রোববার সরকারি-বেসরকারি নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে এ মাটির মুক্তির জন্য প্রাণ দেওয়া ৩০ লাখ শহীদকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে দেশবাসী।

সরকারি-বেসরকারি সব ভবনে উড়বে জাতীয় পতাকা, সাভার স্মৃতিসৌধসহ দেশের সব শহীদ বেদীগুলো ভরে উঠবে শ্রদ্ধার ফুলে। বিজয়ের শোভাযাত্রায় মুখর হবে রাজপথ।

বিজয় দিবসের কর্মসূচি শুরু হবে সকালে রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে।তার পরের কর্মসূচি আবর্তিত হবে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন।

এরপর মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর নেতৃত্বে বীরশ্রেষ্ঠ পরিবার, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা শ্রদ্ধা জানাবেন একাত্তরের বীর শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশে।

বাংলাদেশে নিয়োজিত বিদেশি কূটনীতিক, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের জনগণ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন।

ঢাকা ও দেশের বিভিন্ন শহরের প্রধান সড়ক ও সড়কদ্বীপসমূহ জাতীয় পতাকা ও অন্যান্য পতাকায় সজ্জিত করা হবে।ঢাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বিভিন্ন বাহিনীর বাদক দল বাদ্য বাজাবেন। দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে এদিন সংবাদপত্রগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, বাংলা একাডেমি, জাতীয় জাদুঘর, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, বাংলাদেশ শিশু একাডেমিসহ বিভিন্ন  সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শিশুদের চিত্রাঙ্কন, রচনা ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনের আয়োজন করবে।

এছাড়া মহানগর, জেলা ও উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হবে।বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ স্মারক ডাক টিকিট প্রকাশ করবে। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও উপাসনার আয়োজন করা হবে।

এতিমখানা, বৃদ্ধাশ্রম, হাসপাতাল, জেলখানা, সরকারি শিশুসদনসহ ওই ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলোতে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে। দেশের সব শিশু পার্ক ও জাদুঘর বিনা টিকিটে উন্মুক্ত রাখা হবে।

জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে এবং বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসেও দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।এ বছর ঢাকাস্থ জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে সম্মিলিত বাহিনীর কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে না, তবে দেশের সব জেলা ও উপজেলা সদরে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে বিজয় দিবস উপলক্ষে ঢাকার গাবতলী এলাকা থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধ পর্যন্ত সড়কে যে কোনো ধরনের তোরণ, পোস্টার, ব্যানার এবং ফেস্টুন লাগানো থেকে বিরত থাকতে এবং রাস্তার দুই পাশে পর্যাপ্ত জায়গা পরিষ্কার রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Related Posts
করোনা ভাইরাস ১৫ জেলায়, ৪টি ‘ক্লাস্টার’
নভেল করোনাভাইরাস এখন দেশের ১৫ জেলায় বিস্তৃত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া রাজধানীসহ নারায়ণগঞ্জ, মাদারীপুর ও গাইবান্ধা জেলাতে ‘ক্লাস্টার’ (একই এলাকায় কম দূরত্বে একাধিক আক্রান্ত) ব্যক্তি পাওয়ার তথ্য দিয়েছেন অধিদপ্তরের ...
READ MORE
সোমবার পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেনীর ফল প্রকাশ
মুশফিকুর রহমান : পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেনীর সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ৫৮ লাখ শিক্ষার্থীর ফলাফল ঘোষনা হবে  সোমবার। এদিন প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র ...
READ MORE
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নতুন মন্ত্রীপরিষদের ফুলেল শ্রদ্ধা
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ এবং নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের পর প্রথম টুঙ্গিপাড়ায় গেলেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তার ...
READ MORE
ধানের শীষ নিয়ে জামায়াতে ইসলামী লড়বে ২৪ আসনে
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৪টি আসন পেয়েছে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জামায়াতে ইসলামী। শনিবার বিকেলে ঢাকার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ের মাইকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।   জামায়াত লড়বে যে ...
READ MORE
আ’লীগের মেয়াদ উত্তীর্ন জেলা-উপজেলা সম্মেলন শুরু চলতি মাসেই
অক্টোবরে জাতীয় সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী মেয়াদ উত্তীর্ন জেলা ও উপজেলাগুলোর সম্মেলন শুরু হচ্ছে শিঘ্রই । তাছাড়া ইতিমধ্যেে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন আয়োজনের প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ...
READ MORE
প্রার্থী প্রত্যয়নে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম চেয়ে ইসির চিঠি
একাদশ সংসদ নির্বাচনে আসনভিত্তিক চূড়ান্ত মনোনীত প্রার্থী প্রত্যয়নে দলের ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম, পদবী ও নমুনা স্বাক্ষর চেয়ে নিবন্ধিত ৩৯টি দলকে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ইসি কর্মকর্তা হালিম খান শুক্রবার সাংবাদিকদের  বলেন, ...
READ MORE
করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব।। বন্ধ হচ্ছে ৫০ টি সোশ্যাল একাউন্ট
নভেল করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে সোশাল মিডিয়ার ৫০টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে বলেছে পুলিশ।পুলিশ সদরদপ্তর থেকে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসিকে এই অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে সহকারী মহাপরিদর্শক মো. সোহেল রানা জানিয়েছেন। গুজব ...
READ MORE
৩১ মার্চ পর্যন্ত  শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা
করোনা'র কারনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করা হবে কিনা এমন দ্বিধা-দ্বন্দের পর অবশেষে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করছে সরকার। আপাতত ৩১ ...
READ MORE
সৈয়দপুর পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার সহ ১২ জনের প্রার্থিতা বাতিল
চেম্বার আদালতের আদেশে প্রার্থিতা হারালেন      সৈয়দপুর পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার সহ বিএনপির নয় প্রার্থী । এ দিন ওই ৯ প্রার্থী সহ মোট  ১২ জন প্রার্থীর  মনোনয়ন স্হগিত ...
READ MORE
সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদা’র ‘নির্বাচনে অংশ নেয়া অনিশ্চিত
ঘুষ নেওয়ার দণ্ডিত সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদাকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলেছে হাই কোর্ট; এতে আসন্ন নির্বাচনে তার অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়ল। প্রায় এক যুগ আগের মামলাটিতে গত বছর তার সাত ...
READ MORE
করোনা ভাইরাস ১৫ জেলায়, ৪টি ‘ক্লাস্টার’
সোমবার পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেনীর ফল প্রকাশ
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নতুন মন্ত্রীপরিষদের ফুলেল শ্রদ্ধা
ধানের শীষ নিয়ে জামায়াতে ইসলামী লড়বে ২৪ আসনে
আ’লীগের মেয়াদ উত্তীর্ন জেলা-উপজেলা সম্মেলন শুরু চলতি মাসেই
প্রার্থী প্রত্যয়নে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম চেয়ে ইসির চিঠি
করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব।। বন্ধ হচ্ছে ৫০ টি
৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা
সৈয়দপুর পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার সহ ১২
সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদা’র ‘নির্বাচনে অংশ নেয়া অনিশ্চিত
Spread the love
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।