আজ-  ,
basic-bank পরিক্ষা মূলক সম্প্রচার...
ADD
সংবাদ শিরোনাম :
«» সৈয়দপুরে পৌর নির্বাচনের প্রাক্কালে আ’লীগ-জাপার সংর্ঘষের ঘটনায় দূ’টি মামলা দায়ের। «» আজ মহান একুশ।।আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। «» সৈয়দপুরে পৌর নির্বাচনের প্রাক্কালে জাপা-আ’লীগ সংর্ঘষ।। «» নীলফামারী জেলা আইনজীবি সমিতির নির্বাচনে মমতাজুল সভাপতি, আলফারুক সম্পাদক নির্বাচিত। «» ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “আজব স্বপ্ন”। «» ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “চুলকানী”। «» সৈয়দপুর পৌর নির্বাচন ২৮ ফেব্রুয়ারী,প্রজ্ঞাপন জারী। «» ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “পল্টিবাজ”। «» সৈয়দপুরে উপজেলা আ’লীগ সভাপতিকে “মুক্তভাষার” পক্ষে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান। «» সৈয়দপুর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি হলেন মোখছেদুল মোমিন।

ফয়েজ আহমেদ এর রম্য রচনা “তেল হাওয়া”

তেল হাওয়া”

(একটি ছোট রম্য রচনা)

মিলে সরিষা তেল নাই কথাটা শুনে একটা হোচট খায় সজিব। সে ভাবে করোনা প্রর্দুভাবের কারনে মানুষের আয়-রোজগার কমে গেছে। হাট-বাজারে মানুষ কম আসছে। এখনতো সব ধরনের মালামাল অহরহ পাওয়া যাওয়ার কথা। আর উনি কি বলছেন, তার মিলে তেল নাই। তেলের এত চাহিদা। সজিব ভাবে,হয়ত কাচা মাল পাওয়া যাচ্ছে না। তাই হয়ত উৎপাদন অনেকটা কমে গেছে।

সে আবার দোকানদারকে বলেন, ভাই কবে আসলে তেল পাব। এবার দোকানদার যা বলেন,তা শুনে তাজ্জব বনে যান, সজিব। দোকানদার বলেন, ভাই তেল কখন পাবেন, তার গ্যারান্টি দিতে পারব না। তেল উৎপাদন হওয়ার সাথে সাথে বিক্রয় হয়ে যাচ্ছে।

অনেকে আবার অগ্রীম টাকা দিয়ে রেখেছেন। তাদেরই সঠিক ভাবে সরবাহ করতে পারছিনা। আর নতুন করে তেলের অর্ডার নেয়াও বন্ধ করে দিয়েছি। আপনি যোগাযোগ রাখেন। তেল থাকলে,তখন দেয়া যাবে।

সজিব আরো ভাবনায় পড়ে যায়। সে ভাবতে থাকে এই সময়ে এত তেল কোথায় যাচ্ছে। সজিব আরো ৩ টি পাইকারি দোকানে খোজ নিয়েছে। তারাও একই কথা বলেছেন। ভাবনা আরো বেড়ে যায় সজিবের। সে এবার দোকানদারকে জিজ্ঞেস করেন,ভাই হঠাৎ করে আপনাদের এত বিক্রয় বেড়ে গেল কেন। কারা নিচ্ছে, আপনাদের এত তেল।

দোকানদারের জবাব শুনে এবার আরো তাজ্জব বনে যান, সজিব। দোকানদার বলেন,এখন রাজনীতিতে তেলের কদর বেড়ে গেছে। ছাত্র ,যুবক ও মুল দলের নেতা-কর্মিরা এখন মনকা মন তেল কিনে ব্যবহার করছেন। কেউ আবার তেল মজুদ করে রাখছেন হঠাৎ প্রয়োজনের কথা মনে রেখে।

সজিব দোকানদারকে জিজ্ঞেস করেন,ভাই ওনারা তেল দিয়ে কি করেন। রাজনীতি ছেড়ে ওনারা কি তেলের ব্যবসা ধরলেন না কি? এবার বিরক্ত হয় দোকানদার। বলেন ভাই আপনি যান তো। আজে বাজে প্রশ্ন করে, মাথা নষ্ট করিয়েন না তো। রাজনৈতিক নেতা-কর্মিরা করবে তেলের ব্যবসা। বোকা হাদা কোথাকার বলে, সজিব কে দোকান থেকে চলে যেতে বলেন।

সজিব এবার বোকা বনে যান। সে দোকানদারকে অনুযোগের সাথে জিজ্ঞেস করেন,ভাই আমি জানিনা বলে তো জি্জ্ঞেস করছি। দয়া করে বলুন না, ওনারা তেল দিয়ে কি করেন।

এবার দোকানদার আরও বিরক্ত হয়। এমন বোকা লোক সে কখনও দেখেনি। দোকাদার এবার বলেন,যানতো ভাই। তেল দিয়ে কি করে তা তামান্না মোড়ের বদিয়ার চাচাকে গিয়ে জিজ্ঞেস করেন। ওনি আপনাকে বলে দেবেন।

সজিব দোকানদারকে বলেন, ভাই আমি বদিয়ার চাচাকে তো চিনি না। আর কোথায় খুজব বদিয়ার চাচাকে। আমিতো ওনাকে চিনি না। আপনি বলুন না। তেল দিয়ে ওনারা কি করেন।

সজিবের বার বার প্রশ্নে এবার বিরক্ত হয় দোকানদার। এমন বোকা লোক ওই দোকানদার আগে দেখেনি। তাই দোকানদার এবার সজিবকে বলেন,আপনি জানেন নেতারা এত পিচ্ছিল কেন। সজিব বলেন,নাতো ভাই। দোকানদার আবার বলেন, আপনি জানেন নেতাদের খালি হাতে ধরা যায়না কেন। সজিব উত্তর দেন, না জানিনা তো। দোকানদার বলেন, এই সবই তেলের তেলেসমাতি।

নেতাদের শরিরে তেল থাকে। তাই নেতারা পিচ্ছিল হয়,নেতাদের ধরা যায় না। আর অনেকেই এই তেল কিনে নেতাদের উপহার দেন। আবার অনেকেই নেতাদের হাঁতে পাঁয়েসহ পুরো শরিরে ম্যাসেস করে দেন। তাইতো বাজার থেকে তেল হাওয়া।

দোকানদার আরও বলেন,এই তেল না দিলে নেতাদের কাছে প্রিয় হওয়া যায় না। পদ-পদবি জোটে না। যে যত বেশি তেল দেয়, সে তত বেশি প্রিয় হয়, কাছের মানুষ হয়। তেল না দিলে আপনার কোন কাজ-কর্ম হবেনা। সব কাজ আটকে থাকবে, বুঝলেন।

দোকানদার বলেন,আপনি শুনেন নাই,তেল দিলে বেশ,না দিলে আপনি শেষ। শহর ও গ্রামে কি কম নেতা আছে। তাদের কি তেল লাগেনা। তাছাড়া দেখেন নাই,ক’জন নেতা পাতলা। মোটামুটি সবাইতো মোটা।দোকানদার আরও বলেন, শহরের একজন মোটা নেতাকেই তো লাগে, মাসে টনকা টন তেল। আরো তো অনেক নেতা আছে। তাদের কি তেল লাগে না । আর আপনি আসছেন,তেল কিনতে।
যান তো,চলে যান।

দোকানদারের কথা শুনে হতবাক হয়ে যায় সজিব। সে মনে মনে ভাবে,দোকানদার ভাই তো সঠিক কথাই বলেছেন। আজ-কাল তো রাজনীতিতে তেল ছাড়া কোন কাজই হয়না। রাজনীতিতে ঢুকে গেছে তেল।এছাড়া আর্থ-সামাজিক ব্যবস্থায়ও এখন চলছে তেলের তেলেসমাতি। আর তাই তেলের এত কদর। আর এ কারনে অনেকে পাচ্ছেনা তেল। তেলের যে এভাবে কদর বেড়ে যাবে তা বুঝতে পারেনি সজিব। তাই সজিব তেল না পেয়ে, মলিন মন নিয়ে,বাড়িতে ফিরে আসেন। 

Related Posts
“ভাষা”
"ভাষা"   ফয়েজ আহমেদ   বাংলা মোদের,মায়ের ভাষা বাংলা মোদের,হৃদয় আশা, বাংলা ভাষায় বলি কথা বাংলায় দেখি,স্বপ্ন আশা।   বাংলা ছিল,মায়ের ভাষা কেড়ে নিতে,চাইলো ওরা, মুখে মোদের,চাইলো দিতে বসায় ওদের,নিজের ভাষা।   গর্জে উঠল,আমার ভাইরা বাংলা রবে,মোদের ভাষা, মিছিল-মিটিং,করছে তারা মানবো নাতো,ওদের কথা।   চলছে এবার,মিছিল মিটিং সামাল দেয়া,হয়েছে কঠিন, ছাত্র-জনতা,বেধেছে ...
READ MORE
ছোট গল্প “হাঁস বিড়ালে খাইছে”
"হাঁস বিড়ালে খাইছে" - ফয়েজ আহমেদ। (বর্তমান প্রেক্ষাপটের একটি ছোট গল্প) সেদিন ছিল সোমবার। ফকিরের হাট। সজিব হাটে গিয়ে হাস কিনবে। হাসের মাংস খুব প্রিয় সজিবের। বাজারের ব্যাগ নিয়ে মটরসাইকেল স্টার্ট দিয়ে হাটের ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র ছোট গল্প “রহিমুদ্দিনের কৃতজ্ঞতা”
"রহিমুদ্দিনের কৃতজ্ঞতা"   ( করোনা কালের একটি ছোট গল্প )   -ফয়েজ আহমেদ।   রহিমুদ্দিনের চোঁখ দিয়ে নিরবে পানি ঝড়ছে। একটা বোবা কান্না তার বুক চিড়ে বেরিয়ে আসতে চায়। কিন্তু সে কাদতে পারছেনা। রাত ৩ টা ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র ছোট একটি প্রেমের গল্প “রাজ যোটক”
"রাজ যোটক"                          -ফয়েজ আহমেদ।                (ছোট একটি প্রেমের গল্প) বিকালের ফ্লাইটে সৈয়দপুর আসছে পল্লবী। খবরটা শুনে ...
READ MORE
ছোট গল্প “নিষ্ঠুর করোনা”
"নিষ্ঠুর করোনা"   ফয়েজ আহমেদ।   দু'চোঁখ দিয়ে নিরবে গড়িয়ে পড়ছে অশ্রু। কিছুতেই থামাতে পারছেন না জোসনা বেগম। তার বুক চিড়ে বোবা কান্না বেড়িয়ে আসছে। ইচ্ছা করছে চিৎকার করে কান্না করতে। তাও পারছেন না। ...
READ MORE
ছোট গল্প “কুলাঙ্গার”।
"কুলাঙ্গার"     -ফয়েজ আহমেদ।   বাঁচ্চাটা কাঁদছে। খেতে চাচ্ছে। একটু মুড়ি ছিল তা এগিয়ে দেয় জরিনা। বাঁচ্চাটা মুড়ি খাবেনা। মুড়ির বাটি হাত দিয়ে সরিয়ে দেয়। বলে মুড়ি খাব না। সে মায়ের কাছে ভাত চায়। ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “চুলকানী”।
"চুলকানী"।   -ফয়েজ আহমেদ।   দলের নিকট বারবার ধর্না দিয়েও নমিনেশন পেলেন না কামরুল সাহেব। মোটা অংকের টাকাও দিয়েছেন,তবুও গলাতে পারেননি মন। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ কোনভাবেই কামরুল সাহেবকে নমিনেশন আর দিলেন না। দীর্ঘ দিনের পরিক্ষীত,কর্মী ...
READ MORE
“বিদ্রোহী সত্তা”
                            "বিদ্রোহী সত্তা"                               ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র এর গল্প “অসম প্রেম পরিনতি”
মাসুদ পার্কে বসে আছে। রীতা মাসুদকে জরুরী ভাবে এখানে আসতে বলেছে। আজ রীতা আর মাসুদের ভালবাসার পরিনতির ফায়সালা হবে।  চুড়ান্ত বোঝা-পড়া হবে।ভালবাসা নিয়ে টানপোড়েন নিষ্পতি করবে ওরা। ক'দিন থেকে রীতা ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “পল্টিবাজ”।
"পল্টিবাজ"।   -- ফয়েজ আহমেদ। জামাল সাহেব সভাপতি প্রার্থী। দলের কাউন্সিল চলছে। সভাপতি পদে আরও পাঁচ জন প্রার্থী আছেন।  সভাপতি ও সম্পাদক নির্বাচিত করার জন্য ১৬৭ জন কাউন্সিলর তালিকা প্রস্তত করা আছে। কেন্দ্রীয় ও ...
READ MORE
“ভাষা”
ছোট গল্প “হাঁস বিড়ালে খাইছে”
ফয়েজ আহমেদ’র ছোট গল্প “রহিমুদ্দিনের কৃতজ্ঞতা”
ফয়েজ আহমেদ’র ছোট একটি প্রেমের গল্প “রাজ যোটক”
ছোট গল্প “নিষ্ঠুর করোনা”
ছোট গল্প “কুলাঙ্গার”।
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “চুলকানী”।
“বিদ্রোহী সত্তা”
ফয়েজ আহমেদ’র এর গল্প “অসম প্রেম পরিনতি”
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “পল্টিবাজ”।

Spread the love
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।