আজ-  ,
basic-bank পরিক্ষা মূলক সম্প্রচার...
ADD
সংবাদ শিরোনাম :
«» স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি নির্মল গুহ আর নেই। «» সৈয়দপুর উপজেলা আ’লীগের “স্বপ্নের পদ্মা সেতু” উদ্বোধন ও প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত। «» ভারতে মহানবীর (সা:) অবমাননার প্রতিবাদে উত্তাল সৈয়দপুর, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ। «» সৈয়দপুরে স্কুল শিক্ষককে ফাঁসাতে গিয়ে বোতলাগাড়ির মিলন এখন জেল হাজতে। «» সৈয়দপুর ফাইলেরিয়া হাসপাতাল পরিচালনায় নতুন কমিটি ঘোষনা। «» সৈয়দপুরে আ’লীগ সভাপতির নেতৃত্বে সাংবাদিক হককে গ্রেফতার ও বহিষ্কারের দাবীতে প্রতিবাদ মিছিল। «» সৈয়দপুরে সাংবাদিক মোতালেব প্রহৃতের ঘটনায় আ’লীগের প্রতিবাদ মিছিল। «» সৈয়দপুরে কামারপুকুর ইউনিয়ন আ’লীগের মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন। «» সৈয়দপুরে আ’লীগের নব-নির্বাচিত কমিটি কতৃক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন। «» সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক সাহিদুর রহমান বিশেষ পুরষ্কারে ভূষিত।

ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “চুলকানী”।

“চুলকানী”।

 

-ফয়েজ আহমেদ।

 

দলের নিকট বারবার ধর্না দিয়েও নমিনেশন পেলেন না কামরুল সাহেব। মোটা অংকের টাকাও দিয়েছেন,তবুও গলাতে পারেননি মন। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ কোনভাবেই কামরুল সাহেবকে নমিনেশন আর দিলেন না। দীর্ঘ দিনের পরিক্ষীত,কর্মী বান্ধব কামরুল সাহেবকে সুযোগ না দিয়ে,তারা নমিনেশন দিলেন সদ্য দলে আসা একজন অত্যান্ত জনপ্রিয়,জননেতা আমির সাহেবকে।

কি আর করা,অগত্যা রাগ,ক্ষোভ ও অভিমানে দল ত্যাগ করলেন কামরুল সাহেব।যোগ দিলেন “সুবিধা বাদী জাগো দলে’। সুবিধা “বাদি জাগো দল” ক্ষমতাসীন দলের সাথে ঐক্য করার কারনে এবার “চেয়ার” পেলেন কামরুল সাহেব। পুরো পাঁচ বছর নিজের আরাম-আয়েশ,ইচ্ছা-অনিচ্ছা সব জয় করলেন। জনগনের কল্যানের চিন্তা,তার মাথায় এলোনা।
 তাছাড়া জনগনের কল্যান চিন্তা কামরুল সাহেব এর মাথায় আসার কথাও না। তিনি ঐক্য’র সুবিধায় “সুবিধা বাদি জাগো দল”র প্রতিনিধি হিসেবে “চেয়ার” পেয়েছেন। এ “চেয়ার”জনগন তাকে দেয়নি। তাই জনতার কাছে তার কোন দায়বদ্ধতা বা জবাব দিহিতাও ছিল না। তার শুধু একটাই দায়বদ্ধতা ছিল,নিজের কল্যান সাধনে কাজ করা। তিনি এই “নীতিতে” পুরো সফল একজন ব্যক্তি।
পাঁচ বছর পর আবার নির্বাচন দ্বোর গড়ায়।ক্ষমতাসীন দলের সাথে “সুবিধা বাদি জাগো দল’র” চুক্তি বহাল আছে। এবারও কামরুল সাহেব ক্ষমতসীন দলের ঐক্য সুবিধা নিয়ে “চেয়ার” ঠিক রাখবেন। টাকা যত লাগবে তিনি খরচ করবেন। কিন্তু সমস্যা অন্য জায়গায়। এবার “সুবিধা বাদি জাগো দলে”র একজন বড় নেতা এই “চেয়ারের” জন্য তদ্বির করছেন। কামরুল সাহেব টাকা’র অংক বাড়িয়ে দিলেন। কিন্তু বিধি বাম। তিনি এবার আর সফল হলেন না। তার “চেয়ার” আর রক্ষা করা গেল না। তিনি এখন হয়ে গেলেন,নজরপুর ইউনিয়নের একজন “সাবেক চেয়ারম্যান”।
আবারো রাগ,ক্ষোভ আর অভিমান পেয়ে বসল কামরুল সাহেবকে। তাকে চেয়ার না দেয়ায় তিনি “সুবিধা বাদি জাগো দলের” চৌদ্দ গোষ্ঠি উদ্ধার করলেন। সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করলেন, “জাগো পার্টি” থেকে। এখন তিনি মোটা-মুটি একা। বাড়ী আর নিজের ব্যবসা-বানিজ্য নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। রাজনীতি থেকে এক প্রকার নিজেকে গুটিয়ে রাখলেন, কামরুল সাহেব।
এভাবে কামরুল সাহেব এর জীবন থেকে অতীত হল আরো পাঁচটি বছর। সমনে আবার এল নির্বাচন। মনটা আর কিছুতেই মানছে না। নির্বাচনী সুড়সুড়ি তার পুরো শরীরে “চুলকানী” ধরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু কি করবেন,কামরুল সাহেব। নির্বাচন করলে,প্লাট ফরম লাগে। কিন্তু তার তো কোন প্লাট ফরম নেই। স্বতন্ত নির্বাচনে গেলে যে,বিশাল জনপ্রিয়তা প্রয়োজন,তাও তার নেই। তাহলে কিভাবে দাড়াবেন নির্বাচনে। এদিকে শরীরের “চুলকানী,”কিছুতেই থামাতে পারছেন না কামরুল সাহেব। ।
নির্বাচনী ঢামাঢোল বাজছে। প্রার্থীরা সব নির্বাচনী প্রস্তুুতি গ্রহনে ব্যস্ত। এমন সময় কামরুল সাহেব জানতে পারেন,তার পুর্বের দল “বাংলাদেশ গনপার্টিতে” প্রার্থী সংকট বিদ্যমান। ওই দলের “আমির সাহেব” রাজনীতি থেকে বিদায় নিয়ে চলে গেছেন বহুদুর। আর তিনি রাজনীতিতে ফিরবেন না। খবরটা পেয়ে কামরুল সাহেব এর “চুলকানী”যেন আরো অনেক বেড়ে গেল। স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে আলোচনা করে,তিনি আবার ফিরলেন তার পুর্বের প্রিয় দল “বাংলাদেশ গনপার্টিতে”।
বাংলাদেশ “গনপার্টিতে” ফেরার খবরটা বেশ গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করেছে,দেশের অনেক প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়া। কারন “সাবেক চেয়ারম্যান” বলে কথা।অর্থ-বিত্ত,প্রতিপত্তি কিসে কম,কামরুল সাহেব। তাছাড়া আবার “চেয়ার” পাচ্ছেন কামরুল সাহেব।  এটা মোটা-মুটি নিশ্চিত ধরে নিয়েছেন,অধিকাংশ মিডিয়া কর্মী। তাই, তার সুনজরে আসাও একটা অর্জন।
এদিকে “পার্টিতে” যোগ দিয়েও শান্তিতে নেই কামরুল সাহেব। “চুলকানী”টা কিছুটা কমলেও মনের মধ্যে এক অজানা ভয় তার কাজ করছে। শেষ পর্যন্ত দল তাকে মনোনয়ন প্রদান করবেন তো। তিনি আরও চিন্তা করছেন,নির্বাচনে জনগন তাকে কি ভাবে গ্রহন করবেন। এছাড়া নির্বাচনে খরচ হবে কাড়ি কাড়ি টাকা। জনগন ভালভাবে গ্রহন না করলে,তার টাকাসহ সব চেষ্টাই ব্যর্থ হয়ে যাবে। কামরুল সাহেব এর  “চুলকানী”টা এবার মনে হয়, আরো বেড়ে যাচ্ছে।
কামরুল সাহেব সিদ্ধান্ত নেয়,টাকা কত যায় যাক। তবুও সে দলের দলীয় মনোনয়ন হাসিল করবেন। এরপর প্রয়োজনে টাকার বন্যা বইয়ে দিবেন। কিন্তু নির্বাচনে, তাকে জিততেই হবে। । তাছাড়া কামরুল সাহেব জানেন,টাকার নেশা মানুষের বড় নেশা। তিনি জনতাকে টাকার নেশায় নির্বাচনের দিন পর্যন্ত বুদ করে রাখবেন। এবং তাদের ভোট নিয়ে,বিজয়ী হবেন। একথা ভাবতেই কামরুল সাহেব এর মনটা বেশ উৎফুল্ল্য হয়ে ওঠে। তার শরীরের সুড়সুড়ানী ও “চুলকানী” ভাবটা যেন, নিমিশেই হাওয়া হয়ে যায়।
Related Posts
ফয়েজ আহমেদ’র কবিতা  “যুদ্ধ চাই”
যুদ্ধ চাই" -ফয়েজ আহমেদ যুদ্ধ চাই,ভৌগলিক রেখার নয় স্বাধীনতা চাই,সেই পতাকার নয়, সংগ্রাম চাই,রুখতে,অশুভ ব্যাধি আরেকটি যুদ্ধ চাই,করতে শুদ্ধির।   যুদ্ধ চাই আনতে,শুভ রাজনীতি অফিস-আদালত হবে,মুক্ত র্দূনীতি, সামাজিক স্তরে চাই,প্রকৃত সেবা যুদ্ধ চাই মোরা,সুশাসন প্রতিষ্ঠার।   যুদ্ধ চাই,আনতে মানবতার সুদিন গাইবে সবাই,মানবিক গান ...
READ MORE
“আমি বাঙ্গালী”
"আমি বাঙ্গালী" -ফয়েজ আহমেদ   আমি বাঙ্গালী,বীর আমি,মহাবীর দুঃসাহসী নির্ভীক,মৃত্যুন্জয় আমি, ভয়,সেটা আবার কি?জানা নেইতো আমি বঙ্গবন্বুর জ্বালাময়ী ভাষন,কবিতা।   ৭মার্চের ঐতিহাসিক ডাক,নির্ভয়তা আমি আষাঢ়ের বজ্রপাত,আমি কঠিন বজ্রশক্তি, দুচোঁখে যুদ্ধের নেশা,আমি স্বাধীনতাকামী বিজয় ছিনিয়ে নেয়া, রক্তিম হতিহাস আমি।   মনে নেই একাত্তর,আমি তার ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”বিধি বাম”।
ভালবেসে নাজমীনকে বিয়ে করেছিল তুহিন। ক'দিন আগে নাজমীন আর তুহিনের বিয়ের দশ বছর পুর্ণ হয়েছে। জাকজমক ভাবে বিয়ের দশ বছর পূর্তি করেছেন তারা।  সংসার জীবনে তাদের কোন অর্পূন্নতা নেই। শুধু ...
READ MORE
“জাগ্রত স্বপ্ন”
"জাগ্রত স্বপ্ন" -ফয়েজ আহমেদ   তোমার স্মৃতি উকি দেয়, হৃদয় আয়নায় ভোলা যায় না,মনের গহীনে চাপা কষ্ট, যতবার চেষ্টা করি,ভুলব তোমার স্মৃতি জাগ্রত স্বপ্নে,সামনে এসে দাড়াও তুমি।   তোমার স্মৃতিগুলো কষ্ট দেয়,অবিরত সুখ-স্মৃতির দিনগুলো,আজ বেদনাময়, কষ্টের কঠিন আঘাত,জর্জরিত হাহাকার স্মৃতির বেড়াজালে ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “ফাঁপরবাজ”।
"ফাঁপরবাজ নেতা"।   ( ফয়েজ আহমেদ এর নির্বাচনী ছোট গল্প)   তামান্না মোড়ে চলছে নির্বাচনী পথ সভা। পথ সভা রুপ নিয়েছে এক প্রকার জনসভায়। চারিদিকে শুধু মানুষ। রংপুর রোডটি জানজটে পরিনত হয়েছে। জানজট নিরসনে ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”ঈদ কালেকশন”।
অফিসে ঢোকার সাথেই সোহাগের হাতে এক'শো জনের নামের তালিকা ধরিয়ে দেন সভাপতি বীর বাহাদুর। বলেন,আগামী বুধবার থেকে কালেকশন শুরু করতে হবে। ঈদের বেশী দেরী নেই। আর বিলম্ব করা যাবেনা। সভাপতি ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ এর রম্য রচনা “তেল হাওয়া”
তেল হাওয়া" (একটি ছোট রম্য রচনা) মিলে সরিষা তেল নাই কথাটা শুনে একটা হোচট খায় সজিব। সে ভাবে করোনা প্রর্দুভাবের কারনে মানুষের আয়-রোজগার কমে গেছে। হাট-বাজারে মানুষ কম আসছে। এখনতো সব ধরনের ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”অমানবিক মানুষ”।
শ্বাস নিতে পারছেন না আছমা বেগম। খুব কষ্ট হচ্ছে তার। মনে হচ্ছে এক্ষনেই মারা যাবেন। কয়েক দিন থেকেই তার শরীরে জ্বর চলছে।  গতকাল জ্বরটা বেশী ছিল। পাড়ার মোড় থেকে নাপা ...
READ MORE
“পুর্বসুরী”
পুর্বসুরী"   ফয়েজ আহমেদ   পলাশীর প্রান্তর,একটি যুদ্ধ যুদ্ধ নয়,এক প্রহসন,চাতুরতা, মীর জাফরের প্রতারনা,লোভ দুশো বছর,পরাধীনতার গ্লানী।   ক্লাইভ চাল,বেঈমানী,স্বার্থপরতা নবাব সিরাজ,বাংলার স্বর্কীয়তা, স্বাধীনতার রক্তিম সুর্য, অস্তমিত স্বার্থক মীর জাফর, অভিপ্রায়।   যুদ্ধ হয়নি, খন্ড নাটক মঞ্চায়ন মোহন লাল,ঊর্মি চাদ কুপোকাত, সম্ভব হয়নি,বেঈমান সেনাপতি প্রতারনা,বাংলা শাসন হারায়।   পলাশী ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র কবিতা “কোভিড-১৯”
কোভিড-১৯"   -ফয়েজ আহমেদ   বিশ্ব এখন অচল অসাড় উৎপাদনের চাকা বেকার উন্নয়ন ধারা থমকে আছে কোভিড-১৯ ত্রাস চালাচ্ছে।   চলেনা আর গাড়ী ঘোড়া ব্যবসা-বানিজ্যে দৈনদশা মেশিন গুলো ধোয়া মোছা দোকান-পাটে নাই সওদা।   বিশ্ব বাজার সাটার ডাউন বিমান-জাহায লক ডাউন মৃত্যুর মিছিল যখন তখন বিশ্বে এখন ...
READ MORE
ফয়েজ আহমেদ’র কবিতা “যুদ্ধ চাই”
“আমি বাঙ্গালী”
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”বিধি বাম”।
“জাগ্রত স্বপ্ন”
ফয়েজ আহমেদ এর ছোট গল্প “ফাঁপরবাজ”।
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”ঈদ কালেকশন”।
ফয়েজ আহমেদ এর রম্য রচনা “তেল হাওয়া”
ফয়েজ আহমেদ’র গল্প”অমানবিক মানুষ”।
“পুর্বসুরী”
ফয়েজ আহমেদ’র কবিতা “কোভিড-১৯”
Spread the love
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।